কৃষি তথ্য সার্ভিস (এআইএস) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৭ August ২০১৭

নীলফামারীতে কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে নাবী আমনের চারা বিতরণ


প্রকাশন তারিখ : 2017-08-27

২৪ আগস্ট ২০১৭ তারিখে নীলফামারী সদর উপজেলার মশিউর রহমান ডিগ্রী কলেজ মাঠে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে জেলা প্রশাসন ও বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশনের সহযোগিতায় ভারী বর্ষণ ও উজানের ঢলে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে চারা বিতরণ কার্যক্রমে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে উদ্বোধন করেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, এমপি। এ সময় তিনি ১২০ জন কৃষকের মাঝে প্রত্যেককে ১ বিঘা জমিতে লাগানো উপযোগী আমনের নাবী জাতের বিনাশাইল চারা বিতরণ করেন। নীলফামারী জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ খালেদ রহীমের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. ইব্রাহিম হোসেন খান ও কৃষি মন্ত্রণালয়ের বীজ অনুবিভাগের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মো. আশ্রাফ উদ্দীন আহমেদ।


প্রধান অতিথি সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর তাঁর বক্তব্যে বলেন, এবারের বন্যা বিগত বন্যার চেয়ে বেশ ভয়াভহ হলেও পানি দ্রুত নেমে যাওয়ায় ক্ষতি কিছুটা কম হয়েছে। বন্যায় কৃষিতে বেশ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তবে সরকার কৃষকের পাশে থেকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। তিনি আরও বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কৃষকদের সব ধরণের সাহায্য-সহযোগিতা করার নির্দেশ দিয়েছেন। উপস্থিত কৃষকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনাদের ঘুরে দাঁড়াতে হবে। বন্যার ক্ষতি পুষিয়ে নিতে তিনি উপস্থিত সকলকে সম্মিলিতভাবে কাজ করার আহ্বান জানান। স্বাগত বক্তব্যে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর নীলফামারী জেলার উপপরিচালক কৃষিবিদ গোলাম মো. ইদ্রিস জানান কৃষক ভাইদের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে নীলফামারী জেলার ৬ উপজেলায় ভারীবর্ষণ ও উজানের ঢলে ক্ষতিগ্রস্থ মোট ৬শ জন কৃষকের মাঝে প্রাথমিক পর্যায়ে বিনামূল্যে নাবী জাতের চারা বিতরণ করা উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।


সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. ইব্রাহিম হোসেন খান বলেন, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়াতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সকল মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দিয়েছেন। সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ও ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়িয়েছে। কৃষি মন্ত্রণালয়ের বীজ অনুবিভাগের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মো. আশ্রাফ উদ্দীন আহমেদ বলেন কৃষি মন্ত্রণালয় নীলফামারী থেকেই সর্বপ্রথম কৃষি পুনর্বাসনের কার্যক্রম হিসেবে ধানের চারা বিতরণ করা হচ্ছে। ক্রমান্বয় সকল ক্ষতিগ্রস্ত জেলা-উপজেলায় কৃষি পুনর্বাসের আওতায় আসবে। কৃষকদের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে যা যা করা দরকার কৃষি মন্ত্রণালয় সে উদ্যোগ ও পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। আলোচনা অনুষ্ঠানের সভাপতি নীলফামারী জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ খালেদ রহীম বলেন, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের সহায়তার জন্য এডিপি বাজেট থেকে বরাদ্দ দেয়ার পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন পৌর মেয়র কৃষিবিদ দেওয়ান কামাল আহমেদ। 


অন্যদিকে বিকেলে কৃষি মন্ত্রণালয়ের বীজ অনুবিভাগের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মো. আশ্রাফ উদ্দীন আহমেদ সৈয়দপুর উপজেলার কামারপুকুর ডিগ্রী কলেজ মাঠ থেকে ১শ জন ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের মাঝে আমনের নাবী জাতের বিনাশাইল চারা বিতরণ করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সৈয়দপুর উপজেলা চেয়ারম্যান মোকছেদুল মোমেনিন।

 


Share with :
Facebook Facebook