কৃষি তথ্য সার্ভিস (এআইএস) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

কবিতা ফাল্গুন-১৪২১

মানুষ
ড. মো. আলতাফ হোসেন*
মানব শিশু জন্ম নিলেই প্রকৃত মানুষ হয় না
যদি না  সে পরিধান করে মানবতার গয়না।
মানুষ সৃষ্টি সেরা জীব, কথাটি সত্য ভাই
মানুষ হতে হলে মানবিক গুণাবলি থাকা চাই।
কথা বার্তায় নম্র হবে, বিনয়ী সে থাকবে
আচার আচরণে উগ্রতার ছোঁয়া নাহি সে রাখবে।
চলাফেরায় ভাববে না সে অন্যের কোনো ক্ষতি
চেহারায় তার ফুটে উঠবে ভালোবাসার জ্যোতি।
উদারতায় মনটা তার সবসময় ভরা থাকবে
সংকীর্ণ মানসিকতায় কখনও নাহি সে ভুগবে।
কর্মনিষ্ঠ হবে সে, ব্যস্ত থাকবে গঠনমূলক কাজে
কখনোই জড়াবে না সে ধ্বংসাত্মক কোনো কাজে।
অপরের কল্যাণে থাকবে সে নিবেদিত
কখনোই করবে না সে অন্যের সম্পদ অপহৃত।
পরশ্রীকাতরতায় হবে না সে কখনোই কাতর
অপরের সেবায় ছড়িয়ে দিবে ভালোবাসার আতর।
সময়ের মূল্য দিয়ে সময়ের সাথে সে চলবে
সফলতার চরম শিখরে অবশ্যই সে উঠবে।
সততার মুকুট মাথায় নিয়ে পথ সে চলবে
মাথা উঁচিয়ে দৃঢ়তার সাথে কথা সে বলবে।
মিথ্যা কথা কভু সে নাহি কখনো বলবে
ধর্মীয় অনুশাসনগুলো অবশ্যই মেনে চলবে।
ব্রত হবে, জন্ম যেন শেষ না হয় মৃত্যুকে দিয়ে
কর্মের সুফল বেঁচে থাকে যেন পরবর্তী প্রজন্মকে ঘিরে।

 
পার্চিং
মো. মকবুল হোসেন**
শস্য-শ্যামল বাংলার বুকে লাগিয়েছি বোরো ধান
খাদ্য, অর্থ, শক্তি জোগাবে বাড়াবে আরও মান।
সোনার মাটি অনেক খাঁটি, খাঁটি কৃষক ভাই,
এই মাটিতে সোনা ফলাতে, প্রযুক্তি ছড়াই তাই।
সুষম সার, এডব্লিউডি, এলসিসি, লাইনে চারা লাগাই,
পোকামাকড় দমন করতে, ক্ষেতে পার্চিং বসাই।
বোকার ফসল পোকায় খায়, সবাই তা জানে,
ক্ষতিকর পোকা মারতে, পার্চিং লাগাও ক্ষেতের মাঝখানে।
পার্চিং মানে কঞ্চি, ডালপোতা, নিজের ক্ষেতে,
কম খরচে অধিক লাভ, সন্দেহ নাই তাতে।
সমন্বিত বালাই দমন ব্যবস্থাপনা, অনেকে মোরা জানি,
তার মধ্যে ক্ষেতে পার্চিং করা, অন্যতম খানি।
পার্চিংয়ে বসে ফিঙ্গে, শালিক আরও কত পাখি,
শত্রু পোকা সাবাড় করে, বন্ধু পোকা রাখি।
কীটনাশকে পোকা দমনে, পরিবেশ দূষণ হয়,
পার্চিং করে পোকা দমন করতে, কৃষিবিদে কয়।
ডেড পার্চিং, লাইভ পার্চিং, লাগাই সমান তালে,
 
                
কৃষি উন্নয়ন

প্রসেনজিৎ কুমার সাহা***
ডালের চাইতে লাইভ পার্চিংয়ে, বাড়তি ফায়দা মেলে।
আমরা কৃষক, আমরা চাষি
আমরা দেশের প্রাণ।
মাথার ঘাম পায়ে ফেলে,
ফলাই সোনার ধান।
ধানের সাথে আরও ফলাই
শাক, আলু, ডাল,
খাঁটি বাঙালি চাষি আমরা
ফসল মোদের নির্ভেজাল।
ভালো ফসলের অন্তরালে
আছে জৈবসার,
সব ফসলে ব্যবহার করলে
ফলন হবে বাম্পার।
রাসায়নিক দ্রব্য ছাড়াই পতঙ্গ-
নিধনের কৌশল মোরা জানি,
বিষের পরিবর্তে ব্যবহার করি
নিমপাতা সেদ্ধ পানি।

 
* প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা (কীটতত্ত্ব), ডাল গবেষণা কেন্দ্র ও আঞ্চলিক কৃষি গবেষণা কেন্দ্র, ঈশ্বরদী, পাবনা, মোবাইল : ০১৭২৫০৩৪৫৯৫ ** উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা, ব্লক-বাঙালিপুর, উপজেলা- সৈয়দপুর, জেলা- নীলফামারী। *** ডিপ্লোমা ইন এগ্রিকালচার ঈশ্বরদী, পাবনা মোবাঃ ০১৭৫০২৯৬৬৪৮।

Share with :

Facebook Facebook