কৃষি তথ্য সার্ভিস (এআইএস) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২nd নভেম্বর ২০১৭

ভিডিও কনফারেন্সিং এর মাধ্যমে “কৃষি সম্প্রসারণ বাতায়ন” উদ্বোধন


প্রকাশন তারিখ : 2017-11-01

 

দু’হাজার একুশ সাল, বাংলাদেশ হবে ডিজিটাল- মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর এ ঘোষণাকে মাথায় রেখে মাননীয় কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, এমপি ০১ নভেম্বর ২০১৭, বুধবার সকাল ১০টায় কৃষি মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষ থেকে ভিডিও কনফারেন্সিং এর মাধ্যমে ১৪টি কৃষি অঞ্চলে পাইলটিংয়ের জন্য “কৃষি সম্প্রসারণ বাতায়নের শুভ উদ্বোধন করেন। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একসেস টু ইনফরমেশন প্রোগ্রাম ও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের যৌথ উদ্যোগে কৃষকবান্ধব ডিজিটাল কৃষি সেবা ও কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তাদের পেশাগত যোগাযোগ এবং কারিগরী অভিজ্ঞতা বিনিময়ের জন্য এ বাতায়ন কাজ করবে। সে সাথে, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সম্প্রসারণ সেবার তথ্য ভাণ্ডার তৈরি হবে এবং কৃষক তার চাহিদামতো তথ্য পাবেন। ফলে কৃষকের সাথে সম্প্রসারণ কর্মীদের সম্পর্ক আরও নিবিড়, স্বাচ্ছন্দ্যময় বহুমাত্রিক ও সমৃদ্ধিবান্ধব হবে।

 

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মাননীয় কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, এমপি, বলেন দেশের প্রত্যন্ত এলাকার কৃষকদের দোরগোড়ায় কৃষি সেবা পৌঁছে দিতে কৃষি সম্প্রসারণ বাতায়ন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। Access to Information কে এখন Right to Information এ উপনীত করতে হবে।জাতির জনকের সুযোগ্য কণ্যার ব্যক্তিগত প্রজ্ঞা আর নেতৃত্বের কারণে আমরা আজ ডিজিটার এসুযোগগুলো উপভোগ করতে পারছি। সরকারি–বেসরকারি সকলে হাত হাত রেখে কাজ করলে আমরা বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ে তুলতে পারবো।

 

মাননীয় কৃষিমন্ত্রী আরো বলেন, এই ওয়েব পোর্টালের মাধ্যমে কৃষক ও কৃষাণির তথ্যপ্রাপ্তির অধিকার নিশ্চিত হবে এবং কৃষি বিভাগের কার্যক্রমের সচ্ছতা, জবাবদিহীতা ও গতিশীলতা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে। সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারিরা হাতে হাত রেখে এগিযে যাবো মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ভিশন বাস্তবায়নে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সারাদেশে ভিডিও কনফারেন্স করার সুবিধা সৃষ্টি করায় তিনি তাঁর প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

 

এ অনুষ্ঠানে কৃষি মন্ত্রণালয় প্রান্তে মাননীয় কৃষিমন্ত্রীর সাথে উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ মঈনউদ্দীন আবদুল্লাহ্, এটুআই এর প্রকল্প পরিচালক কবির বিন আনোয়ার, কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিবগণ, দপ্তর সংস্থার প্রধানগণ, মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিবসহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা এবং এটুআইয়ের প্রতিনিধিগণ। কুষ্টিয়া জেলা প্রান্তে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক, কুষ্টিয়া এবং কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. মোশারফ হোসেনসহ কৃষি বিভাগের কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি ও কৃষকগণ ।

 

এ ভিডিও কনফারেন্স ১৪টি উপজেলা সংযুক্ত হয়। সেগুলো হলো- ০১. দৌলতপুর, মানিকগঞ্জ ০২. নকলা, শেরপুর ০৩. চাঁদপুর সদর, চাঁদপুর ০৪. বালাগঞ্জ, সিলেট ০৫. পেকুয়া, কক্সবাজার ০৬. বাঘাইছড়ি, রাঙ্গামাটি ০৭. দূর্গাপুর, রাজশাহী ০৮. কামারখন্দ, সিরাজগঞ্জ ০৯. পীরগঞ্জ, রংপুর ১০. বোদা, পঞ্চগড় ১১. মিরপুর, কুষ্টিয়া ১২. রুপসা, খুলনা ১৩. নাজিরপুর, পিরোজপুর এবং ১৪. পাংশা, রাজবাড়ী।

 

এ ভিডিও কনফরেন্সের মাধ্যমে মাননীয় কৃষিমন্ত্রী মাঠপর্যায়ে ফসলের অবস্থা, বালাই ব্যবস্থাপনা, প্রণোদনা কার্যক্রম, পার্সিং, ভাসমান কৃষি কাযৃক্রম, সরিষায় মৌ-চাষের অগ্রগতিসহ বিভিন্ন তথ্য সম্পর্কে অবহিত হন। এক মাসব্যাপী পাইলটিং সফল করে পরবর্তীতে সারাদেশে এ সুবিধা সম্প্রসারণ করা হবে। উল্লেখ্য যে কোন অপারেটর থেকে ২৪ ঘণ্টা ১৬৩৪৫ নাম্বারে এসএমএস করে কৃষকরা যে কোন সেবা নিতে পারবেন। পরবর্তীতে এ নাম্বার থেকে কাঙ্ক্ষিত কৃষি সেবা পাওয়া যাবে।


Share with :
Facebook Facebook