কৃষি তথ্য সার্ভিস (এআইএস) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৬ জুন ২০১৫

কৃষি তথ্য সার্ভিসের উল্লেখযোগ্য সাফল্য

কৃষি তথ্য সার্ভিস (এআইএস)
www.ais.gov.bd

পরিচিতি
কৃষি তথ্য সার্ভিস গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের কৃষি মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন একটি প্রতিষ্ঠান। ১৯৬১ সনে কৃষি তথ্য সংস্থার  আত্মপ্রকাশ ঘটে। এরপর ১৯৮০ সনে কৃষি তথ্য সংস্থাকে কৃষি তথ্য সার্ভিস নামকরণ করা হয়। সংস্থাটি জন্মলগ্ন থেকেই নিরলসভাবে নিজস্ব উদ্যোগে ও অন্যান্য গণমাধ্যমের সহযোগিতায় কৃষি তথ্য ও প্রযুক্তি তৃণমূল পর্যন্ত দ্রুত বিস্তার কার্যক্রম বাস্তবায়ন করে আসছে। কৃষি তথ্য সার্ভিসের সদর দপ্তর খামারবাড়ি, ফার্মগেট, ঢাকায় অবস্থিত।

প্রকল্পের কার্যক্রম:

১. প্রকল্পের নাম : কৃষি তথ্য ও যোগাযোগ কেন্দ্রের মাধ্যমে ডিজিটাল কৃষি তথ্যের প্রচলন ও গ্রামীণ জীবনমান উন্নয়ন প্রকল্প (শুরু জুলাই-২০১২ সমাপ্ত জুন-২০১৫)।

মূলকার্যক্রম (২০১৩-১৪ অর্থ বছর):

. কৃষি তথ্য এবং যোগাযোগ কেন্দ্র (AICC) স্থাপনঃ
সকল শ্রেণীর কৃষকদের জন্য আইসিটি ভিত্তিক আধুনিক কৃষি তথ্য ও প্রযুক্তির বিস্তার এবং আয়বর্ধনমূলক কর্মকান্ড বৃদ্ধির মাধ্যমে গ্রামীণ জীবনমান উন্নয়নের লক্ষ্যে ২০১৩-১৪ অর্থ বছরে ১০০ টি উপজেলায় ১০০ টি ‘কৃষি তথ্য ও যোগাযোগ কেন্দ্র’ (AICC) স্থাপন করা হয়েছে।  এ প্রকল্পের মাধ্যমে সারাদেশে মোট ১৫০টি কৃষি তথ্য ও যোগাযোগ কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। এই কেন্দ্রগুলোতে বিভিন্ন স্থানের কৃষক সংগঠনগুলোর যেমন IPM ICM CBO CIG মধ্য থেকে বাছাই করা হয়েছে। এই সব কেন্দ্র প্রয়োজনীয় কৃষি তথ্য সহায়তা দেয়ার পাশাপাশি আইসিটি মালামাল প্রদান করা হয়েছে।

. আইসিটি (ICT) ) ল্যাব স্থাপন
২০১৩-১৪ অর্থ বছরে কৃষি তথ্য সার্ভিসের আঞ্চলিক অফিসে (খুলনা, সিলেট, ময়মনসিংহ, বরিশাল ও রাঙ্গামাটি) একটি করে মোট ০৫ (পাচঁ) টি আইসিটি ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে। এ প্রকল্পের মাধ্যমে সর্বমোট ১০টি আইসিটি ল্যাব প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। ৯টি ল্যাব প্রতিষ্ঠিত হয়েছে AIS এর আঞ্চলিক অফিস সংলগ্ন স্থানে (রাজশাহী, রংপুর, চট্টগ্রাম, খুলনা, কুমিল্লা, সিলেট, ময়মনসিংহ, বরিশাল, রাঙ্গামাটি) এবং একটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে সদর দপ্তর ঢাকাতে।

. যানবাহন ক্রয়
প্রকল্পের কার্যক্রম সফল বাস্তবায়নের জন্য ২০১৩-১৪ অর্থ বছরে ২৩ টি মোটরসাইকেল এবং ০১ টি ডাবল কেবিন পিকআপ ভ্যান ক্রয় করা হয়েছে।

. মুদ্রন এবং ভিডিও সরঞ্জামাদির উন্নয়ন
আধুনিক কৃষি প্রযুক্তি বিষয়ক ০৩ টি ভিডিও ডকুমেন্টরী এবং ০১ টি ফিলার তৈরি করা হয়েছে। এসব ভিডিও চিত্র ভ্রাম্যমাণ সিনেমা ভ্যানের মাধ্যমে প্রদর্শন করা হচ্ছে। এছাড়াও ১০০০০০টি পোষ্টার, ১৮০০০০টি ফোল্ডার এবং ৪০০০টি বুক ফোল্ডার মূদ্রণ, প্রচার ও বিতরন করা হয়েছে।

. সলভেন্ট প্লটার মেশিন ক্রয়ঃ
ডিজিটাল ব্যানার, ফেস্টুন ও স্টীকার মূদ্রনের জন্য ০১ টি সলভেন্ট মেশিন ও ০১ টি প্লটার মেশিন ক্রয় করা হয়েছে।

২. প্রকল্পের নাম-দশটি কৃষি অঞ্চলে কৃষি তথ্য সার্ভিস-এর কার্যক্রম নিবিড়করণ প্রকল্প (২য় সংশোধিত) (শুরু-জুলাই, ২০০৮, সমাপ্ত-জুন,২০১৫)।

) প্রিন্ট ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাহায্যে কৃষি তথ্য প্রচারণা কার্যক্রম জোরদার করণ:

প্রিন্টমিডিয়া : ২০১৩-১৪ অর্থবছরে প্রায় ২ লক্ষ টাকার ফোল্ডার মুদ্রণ করে বিতরণ করা হয়েছে।

ইলেকট্রনিক মিডিয়া : মোবাইল সিনেমা ভ্যানের মাধ্যমে গ্রাম পর্যায়ে জনসাধারণের মাঝে ২০১৩-১৪ অর্থবছরের ৪৮২টি ভ্রাম্যমাণ চলচিত্র প্রর্দশন করা হয়েছে। এছাড়া বায়ো গ্যাসপ্লান্ট এবং বসতবাড়িতে সবজি ও মাছ চাষ বিষয়ক ০২টি ফিল্ম এবং ভার্মিকম্পোষ্ট ও পলিব্যাগ কম্পোষ্টিং বিষয়ক ০২টি ফিলার তৈরি করা হয়েছে।

খ) মানবসম্পদ উন্নয়ন ও দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে কৃষক, সম্প্রসারণকর্মীসহ সংশ্লিষ্টদের নিয়ে ২০১৩-১৪ অর্থবছরে ২৪টি ব্যাচে
 ১০৮০ জন কে প্রশিক্ষণ ও ১১টি কর্মশালার আয়োজন করা হয়েছে।

প্রযুক্তি হস্তান্তর:

২০১৩-১৪ বৎসরে সম্পাদিত কার্যক্রম

১. ২০১৩-১৪ বছরে প্রায় ৬০ হাজার ভিজিটর (বাংলাদেশ এবং বিদেশ থেকে) কৃষি বিষয়ক সর্ববৃহৎ বাংলা ওয়েবসাইট (www.ais.gov.bd) থেকে তথ্য সেবা গ্রহণ করছেন।

২. বরগুনা জেলার আমতলী উপজেলায় স্থাপিত কমিউনিটি রেডিও প্রতিদিন ৮ ঘন্টা করে অনুষ্ঠান সম্প্রচার করেছে।

৩. বাংলাদেশ টেলিভিশনে কৃষি বিষয়ক “মাটি ও মানুষ” এবং প্রতিদিন সকাল ৭.২৫ মিটিটে প্রচারিত “বাংলার কৃষি” অনুষ্ঠান নির্মাণে কৃষি তথ্য সার্ভিস প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও কারিগরি সহায়তা প্রদান করছে।

৪. তৃণমুল পর্যায়ে এ পর্যন্ত ২৪৫টি এআইসিসি স্থাপন করা হয়েছে । এখান থেকে গ্রামীণ জনসাধারণের মধ্যে বিভিন্ন তথ্য সরবরাহ করা হচ্ছে।
৫. কৃষি কল সেন্টার স্থাপনের মাধ্যমে কৃষি/মৎস্য/প্রাণিসম্পদ বিষয়ক বিশেষজ্ঞদের মাধ্যমে প্রায় ১৮ হাজার উপকারভোগীর  নিকট তথ্য সরবরাহ করা হয়েছে।

৬. মোবাইল সিনেমা ভ্যানের মাধ্যমে গ্রাম পর্যায়ে জনসাধারণের মধ্যে ৭১০টি ভিডিও শো প্রদর্শন করা হয়েছে।

৭. কৃষি প্রযুক্তি নির্ভর ০৩টি ফিল্ম, ০৩টি ফিলার ও ৩টি ডকুমেন্টারি নির্মাণ করা হয়েছে।

৮. বিভিন্ন ফসলের উৎপাদন ও প্রযুক্তি ভিত্তিক ১৭টি ই-বুক নির্মাণ করা হয়েছে।

৯. মাসিক কৃষিকথা পত্রিকায়  ৫.৫০ লাখ কপি যথাসময়ে মুদ্রণ ও বিতরণ করা হয়েছে।

১০. মাসিক সম্প্রসারণ বার্তা  ১২ হাজার কপি যথাসময়ে মুদ্রণ ও বিতরণ করা হয়েছে।

১১. ৪.০০ লাখ কৃষি প্রযুক্তিভিত্তিক লিফলেট/ফোল্ডার মুদ্রণ ও বিতরণ করা হয়েছে।


২০১৩-২০১৪ অর্থ বছরের উল্লেখযোগ্য কর্মকান্ড

. প্রিন্ট মিডিয়া কার্যক্রম:

১. ২০১৪ সালের কৃষি ডাইরি যথাসম্ভব নির্ভুলভাবে ও সময়মত প্রকাশ ও বিতরণ;

২. কৃষি বিষয়ক সমসমায়িক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়াদি (প্রাকৃতিক দুর্যোগ, ফলন বিষয়ক প্রযুক্তি ইত্যাদি) জাতীয় দৈনিকে বিজ্ঞপ্তি আকারে প্রকাশ;

৩. কৃষিকথা প্রায় ৫.৫০ লাখ কপি (প্রায়) ও সম্প্রসারণ বার্তা প্রায় ১২ হাজার কপি  বছরব্যাপী সময়মত প্রকাশ ও বিতরণ করা হয়েছে।

৪.  কৃষি বিষয়ক ৪.০০ লাখ কপি লিফলেট, পোস্টার, বুকলেট ইত্যাদি প্রকাশ ও বিতরণ।


. ইলেকট্রনিক মিডিয়া কার্যক্রম:

১. জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন কৃষি সংক্রান্ত দিবস (ফলদ বৃক্ষরোপণ পক্ষ, বিশ্ব খাদ্য দিবস ইত্যাদি) উপলক্ষে টকশো ধারণ ও বিটিভিতে সম্প্রচার করা;

২. বাংলাদেশ টেলিভিশনে কৃষি বিষয়ক “মাটি ও মানুষ” এবং প্রতিদিন সকাল ৭.২৫ মিনিটে প্রচারিত “বাংলার কৃষি” অনুষ্ঠান নির্মাণে কৃষি তথ্য সার্ভিস প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও কারিগরি সহায়তা প্রদান করে আসছে।

৩. কৃষি বিষয়ক প্রযুক্তি নির্ভর বিভিন্ন ফিল্ম, ফিলার, ডক্যুমেন্টারি ইত্যাদি নির্মাণ ও প্রদর্শন;

৪. বাংলাদেশ বেতারের কৃষি বিষয়ক অনুষ্ঠান সম্প্রচারে সহযোগিতা প্রদান;


. আইসিটি কার্যক্রম:

১. কৃষি তথ্য সার্ভিসের ওয়েবসাইট (www.ais.gov.bd) হালনাগাদকরণ;

২. কৃষি তথ্য সার্ভিস ও প্র্যাকটিক্যাল এ্যাকশন বাংলাদেশের যৌথ উদ্যোগে কৃষি তথ্য সার্ভিস এর প্রধান কার্যালয়ে কৃষি কল সেন্টারের সেবা কার্যক্রম চলছে। কৃষক বিনামূল্যে ১৬১২৩ নম্বরে ফোন করে কৃষি, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ বিষয়ক যে কোন প্রশ্নের তাৎক্ষনিক সমাধান বিশেষজ্ঞদের কাছ থেকে গ্রহণ করতে পারবেন;

৩. পূর্বে  স্থাপিত ১৪৫টি এআইসিসির পাশাপাশি আরও ১০০টি এআইসিসিসহ সর্বমোট ২৪৫টি এআইসিসি ইতিমধ্যে স্থাপিত হয়েছে;

৪. বিভিন্ন ধরনের তথ্যের চাহিদা পূরণের জন্য দেশব্যাপী ১০টি আইসিটি ল্যাব প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। বিগত ২০১২-১৩ অর্থবছরে ৫টি ল্যাব প্রতিষ্ঠিত হয়েছে এআইএসের আঞ্চলিক অফিস সংলগ্ন স্থানে (রাজশাহী, রংপুর,  চট্টগ্রাম, খুলনা, কুমিল্লা) এবং ২০১৩-১৪ অর্থবছরে ঢাকা, ময়মনসিংহ, সিলেট, রাঙ্গামাটি, বরিশাল অঞ্চলে ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে।


. বিবিধ:
১. বিশ্বখাদ্য দিবস ২০১৩, ফলদ বৃক্ষরোপণ পক্ষ ২০১৪ সফলভাবে উদযাপন;

২. বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষ্যে প্রচার প্রচারণার অংশ হিসেবে বিভিন্ন মুদ্রণ সামগ্রী প্রকাশ, মেলা, র‌্যালী ইত্যাদির আয়োজন এবং জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম গ্রহণ;

৩. মানবসম্পদ উন্নয়ন ও দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে কৃষক, সম্প্রসারণকর্মীসহ সংশ্লিষ্টদের নিয়ে প্রশিক্ষণ, সেমিনার, কর্মশালার আয়োজন।এ অর্থবছরে ১৪টি কর্মশালা/ সেমিনার এবং ৩০টি প্রশিক্ষণ আয়োজন করা হয়েছে।

 


Share with :
Facebook Facebook